রেশন বাঁচিয়ে বিপন্ন মানুষকে সেনাবাহিনীর ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

0
13

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক চলমান করোনাযুদ্ধে জয়ী হতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে সারাদেশের মতো পাহাড়ী জনপদ খাগড়াছড়িতেও দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। প্রতিদিনই দুর্গম পাহাড় মাড়িয়ে ছুটে যাচ্ছে বিপন্ন মানুষের পাশে।

করোনা পরিস্থিতিতে চলমান ককর্মকান্ডের অংশ হিসেবে এবার সেনা কর্মকর্তা ও সেনা সদস্যদের জন্য মাসিক বরাদ্দকৃত রেশন থেকে একাংশ বাঁচিয়ে শ্রমজীবী, গরীব ও দুস্থ জনসাধারণের মাঝে ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো গুইমারা রিজিয়ন।

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত রামগড়ের দারোগা পাড়া, মহামুনি পাড়া, বৌদ্ধ বিহার, রামগড় ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ ও সোনাইপুল এলাকায় চলমান লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় ও দু:স্থ শতাধিক পরিবারের মাঝে ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো: শাহরিয়ার জামান।

এসময় প্রাকৃতিক দূর্যোগ করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় রামগড় বৌদ্ধ বিহারে নগদ দশ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন তিনি।

গুইমারা রিজিয়নের জিটুআই মেজর মাঈনুল ইসলাম, গুইমারা সাব জোন কমান্ডার মেজর জুনায়েদ বিন কবির জি, সহকারী কমিশনার (ভুমি) সজীব কান্তি রুদ্র ও রামগড় মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামসুজ্জামানসহ প্রমুখ তাঁর সাথে ছিলেন।

শ্রমজীবী, গরীব ও দুস্থ জনসাধারণের মাঝে ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণের পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতি উত্তোরণে সেনাবাহিনীর বিভিন্ন সচেতনতামূলক কার্যত্রুম এবং রামগড়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা সম্পর্কে খোঁজ খবর নেন ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেন গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো: শাহরিয়ার জামান। এসময় তিনি বলেন, সম্মিলিতভাবেই করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হবে। আতঙ্কিত নয়, সচেতনতার মাধ্যমেই আমরা বিজয় অর্জন করবো।